শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন

কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগ : সম্মেলনের এক বছর পরেও ঘোষণা হয়নি কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৯ সালের ১৭ অক্টোবর। ওই দিন ভেঙে দেওয়া হয় আগের কমিটিও। কিন্তু সেই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার এক বছরের বেশি সময় পার হয়ে গেলেও আজও কমিটি ঘোষণা হয়নি। যে কারণে, দীর্ঘদিন ধরে কমিটি ছাড়া অনেকটা দায়সারাভাবে এখানে চলছে ছাত্রলীগের কার্যক্রম। ফলে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম এ সংগঠনটি এখন নেতৃত্ব ও অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে।
দলীয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৮ নভেম্বর কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের ১০ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই কমিটিতে রাকিব হোসেন সোহেলকে আহ্বায়ক, আসাদ-বিন হাবিব, তানজুর রহমান রুবেল, আমজাদ হোসেন, আনোয়ার হোসেন সিয়াম, মো. হারুন অর রশিদ, শাহ মোহাম্মদ আবদুল হান্নান ও আফসার মাহমুদ হিমেলকে যুগ্ম-আহ্বায়ক এবং সোহেল তাজ ও মঞ্জুরুল আজিজ ফাহিমকে সদস্য করা হয়। এর প্রায় এক বছর পর জেলা ছাত্রলীগ সম্মেলনের মাধ্যমে কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেয়। সে অনুযায়ী জেলা ছাত্রলীগ ২০১৯ সালের ১৭ অক্টোবর হাজিরহাট উপকূল সরকারি কলেজ মাঠে উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের আয়োজনের পাশাপাশি আগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে। ওই সম্মেলনে সাবেক সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল করিম নিশানসহ সংগঠনটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।
সূত্র আরও জানায়, ওই সম্মেলনে রাকিব হোসেন সোহেল, আসাদ-বিন হাবিব, তানজুর রহমান রুবেল, আমজাদ হোসেন ও মো. হারুন অর রশিদ সভাপতি পদে এবং আজাদ বাঘা ও শাহ মো. রোমেল সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হন। কিন্তু সম্মেলন চলাকালে জেলা নেতারা ‘কৌশলগত কারণের’ কথা উল্লেখ করে কমিটি ঘোষণা না দিয়েই সম্মেলন সমাপ্তি করেন। ওই সময় ‘সহসাই’ নতুন কমিটি ঘোষণার কথা বলা হলেও প্রায় তের মাস পেরিয়ে যাওয়ার পর আজও কমিটি ঘোষণা হয়নি।
উপজেলা ছাত্রলীগের কয়েকজন পদপ্রত্যাশী জানান, নতুন কমিটিতে পদ নির্বাচনের বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ঐক্যেমতে পৌঁছাতে না পারায় কমিটি ঘোষণায় এতো বিলম্ব হচ্ছে।
এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে ছাত্রলীগের একাধিক সাবেক নেতা জানান, জেলা ছাত্রলীগের নেতাদের মধ্যে অনুসারীদের পদ-পদবী দেওয়ার প্রতিযোগিতার কারণে কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা ঝুলিয়ে আছে। এর প্রভাব পড়েছে সংগঠনটির ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটির ওপরও। যে কারণে, অতীতের যে কোনো সময়ের তুলনায় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম অনেকটাই কম। সাংগঠনিকভাবে ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছে ছাত্রলীগ। তাই, সংগঠনকে উজ্জীবিত করতে অবিলম্বে উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার দাবী জানিয়েছেন তারা।
তাদের দাবী, অনুসারী সৃষ্টির মানসিকতা থেকে সরে এসে ত্যাগী ও পরিচ্ছন্ন নেতাদের সমন্বয়ে কমিটি ঘোষণা করা হলে কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগ আবারও চাঙ্গা হয়ে উঠবে।
কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ওমর ফারুক সাগর বলেন, ‘সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার তের মাস পরেও কমিটি ঘোষণা না হওয়ায় এবং পূর্বের কমিটি ভেঙে দেওয়ায় ছাত্রলীগ এখন অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে। এতে করে সাংগঠনিক কার্যক্রম অনেকটাই স্থবির অবস্থায় আছে; বিষয়টি সত্যিই দুঃখজনক।’
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন শরীফ বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণায় বিলম্ব হচ্ছে।’

 

নিউজটি শেয়ার করুন:


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 Priyo Upakul
Design & Developed BY N Host BD
error: Content is protected !!